আরডিজেএ’র নির্বাচিত  নেতৃবৃন্দকে  অভিনন্দন জানালেন এরশাদওয়েব নিউজঃ রংপুর-দিনাজপুর অঞ্চলের মানুষের উন্নয়নে নতুন স্রোত সৃষ্টি করায় রংপুর বিভাগ সাংবাদিক সমিতি ঢাকা’র (আরডিজেএ) নতুন নেতৃবৃন্দকে অভিনন্দন জানিয়েছেন, জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান ও সাবেক প্রেসিডেন্ট হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ। ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৩ শুক্রবার আব্দুল গণি রোডের বিদ্যুত ভবন বিজয় হল মিলনায়তনে আরডিজেএ’র অভিষেক অনুষ্ঠানে এ অভিন্দন জানান তিনি। সাবেক প্রেসিডেন্ট এরশাদ বলেন, সৎ সাংবাদিকতার চেয়ে দেশে শক্তিশালী কোন শক্তি নেই। বড় পরিবর্তন তাদের হাতেই সম্ভব। এই শক্তিতে, রংপুর বিভাগ সাংবাদিক সমিতি’র কর্মকান্ড দেশ-বিদেশে প্রশংসিত হবে বলেও আশা করেন তিনি। সাংবাদিকদের নতুন ধারার এ সংগঠনকে রাজনৈতিক ভেদাভেদের উর্ধ্বে থাকারও আহবান জানান, তিনি।

 

অভিষেক অনুষ্ঠান

বেলা সাড়ে ৩টায় বিজয় হলে শুরু হয় অভিষেক অনুষ্ঠানের আনুষ্ঠানিকতা। সংগঠনের সদস্য রকিবুল ইসলাম মুকুল ও নাজনীন আখতারে ৬ বছর বয়সী কন্যা চন্দ্রমুখির অকাল মৃত্যুতে অভিষেক অনুষ্ঠানটিতে ছিলো শোকের আবহ। অনুষ্ঠান মঞ্চের মুল ব্যানারে চন্দ্রমুখির ছবির সাথে ছিলো ‘আমরাও কাঁদছি..’ স্লোগান। শুরতেই কোরআন তেলওয়াত ও দোয়া পরিচালনা করেন, কার্য নির্বাহী কমিটির অর্থ সম্পাদক তরিকুল আহসান ডাবলু। অনুষ্ঠানে চন্দ্রমুখি সহ নিহত সাংবাদিকদের জন্য শোক প্রস্তাব এবং এক মিনিট নিরবতাও পালন করা হয়। হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ ছাড়াও অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করেন,  রংপুরের শিল্পপতি ও বিএনপি নেতা কাওসার জামান বাবলা, সাংবাদিক নেতা মঞ্জুরুল আহসান বুলবুল, আলতাফ মাহমুদ, শাহেদ চৌধুরী, প্রবীণ সাংবাদিক ও ছড়াকার রফিকুল হক দাদুভাই, ম আ কুদ্দুস, আরডিজেএ সভাপতি মুফদী আহমেদ, সহসভাপতি মিথুন কামাল, মর্তুজা হায়দার লিটন, সাধারণ সম্পাদক কেরামত উল্লাহ বিপ্লব, যুগ্ম সম্পাদক শফিক আহমেদ, মোকছুদার রহমান মকসুদ, সাংগঠনিক সম্পাদক, গাউসুল আজম বিপু, দপ্তর সম্পাদক বাতেন বিপ্লব, অভিষেক উদযাপন কমিটির আহবায়ক আনোয়ারুল করিম রাজু। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন সংগঠনের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক সাইফুন্নাহার সুমি ও গাজী টেলিভিশনের শুভংকর।

 

অতিথিদের বরণ

অনুষ্ঠানে আগত অতিথি ও নির্বাচিত নেতৃবৃন্দকে বরণের দায়িত্বেব ছিলেন, সংাস্কৃতিক সম্পাদক মিজান চৌধুরী ও কার্য নির্বাহী কমিটির সদস্য মিজানুর রহমান। ফুল ও সন্মাননা ক্রেষ্ট দিয়ে অভ্যর্থনা পর্বটি আকর্ষণীয় করেছেন তারা।

অতিথি আপ্যায়ন

অতিথি আপ্যায়নে নেতৃত্ব দেন সংগঠনের কার্য নির্বাহী কমিটির সদস্য ও আপ্যায়ন কমিটির প্রধান ইমরুল কায়সার ইমন ও তার সহকর্মীরা। খাবারের তালিকায় তারা এনেছিলেন,  পোড়াবাড়র চমচম, বনফুলের বালুসার মতো প্রসিদ্ধ মিষ্টান্ন।

অভিষেক অনুষ্ঠান শেষে রংপুর বিভাগ সাংবাদিক সমিতি’র নেতৃবৃন্দের সাথে আনুষ্ঠানিক মত বিনিময়ও করেন, জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান ও সাবেক প্রেসিডেন্ট এরশাদ। এসময় রংপুর বিভাগে গ্যাস সরবরাহ এবং আন্তনগর ট্রেনের সার্ভিস উন্নত করতে কর্মসূচি দেয়ার আহবান জানান, এরশাদ।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।